মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

হাটবাজার

১। নামুজা হাট ।

২। চৌমুহিনী বাজার ।

৩। বাংলাবাজার হাট ।

৪। টেংরা বাজার ।

৫। বড় সরলপুর বউ বাজার ।

৬। বামনপাড়া বাজার ।

 

নতুন হাট বাজার সৃষ্টির শর্ত:

  • নতুন হাট বাজার সৃষ্টির অনুমোদন হাট বাজার বসানোর পূর্বেই গ্রহণ করতে হবে।
  • ব্যক্তি মালিকানাধীন জমিতে হাট বসাতে হলে ঐ জমির মালিককে কালেক্টর বরাবরে রেজিষ্ট্রি দলিল মূলে জমিটি হস্তান্তর করে দিতে হবে।
  • এভাবে সৃষ্ট হাট বাজারের আয়-ব্যয় সরকারী নিয়ন্ত্রণে ও বিধি মোতাবেক পরিচালিত হবে।
  • হাটে অবস্থিত চান্দিনা ভিটির খাজনা উক্ত ভিটির মালিককে বাণিজ্যিক হারে পরিশোধ করতে হবে।
  • হাট বাজার সম্প্রসারিত হয়ে কোনো জমিতে চলে গেলে তা থেকে উক্ত মালিক কোন টোল/খাজনা আদায় করতে পারবে না। উক্ত ভূমি পেরীফেরী কালে বাজারের অন্তর্ভূক্ত করতে হবে।
  • এভাবে পেরীফেরীভুক্ত হাট-বাজারের সম্প্রসারিত জমি বিধি মোতাবেক অধিগ্রহণের মাধ্যমে জেলা প্রশাসক হাট বাজারের অন্তর্ভুক্ত করবেন। অধিগ্রহণ মূল্য সংশ্লিষ্ট হাট-বাজারের আয় হতে পরিশোধ করতে হবে।
  • জেলা প্রশাসকের পূর্বানুমতি ব্যতিরেকে কোনো হাট বাজার প্রতিষ্ঠা করা হলে অনুমতি না নেয়ার জন্য ব্যবস্থা নেয়া যাবে। পাশ্ববর্তী কোনো হাট-বাজারে ক্ষতির কারণ থাকলে এরূপ হাট-বাজার উচ্ছেদ করা যাবে কিন্তু ক্ষতিপূরণ না দিয়ে তা বাজেয়াপ্ত করা যাবে না।

নতুন হাট-বাজার সৃজন বা পুরাতন হাট-বাজার তুলে দেয়া সংক্রান্ত প্রস্তাব জেলা প্রশাসক, বিভাগীয় কমিশনারের মাধ্যমে ভূমি মন্ত্রনালয় প্রেরন করবেন। এ বিষয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের কোন সংশ্লিষ্টতা নেই। কারণ স্থানীয় সরকার বিভাগকে কেবল ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, মালিকানা বা স্বীকৃতি প্রদানের ক্ষমতা এ বিভাগের নেই।

হাট-বাজার পরিচালনার জন্য ইউনিয়ন এবং উপজেলা পর্যায়ে একটি করে হাট-বাজার ব্যবস্থাপনা কমিটি রয়েছে। এ কমিটিই হাট-বাজারের যাবতীয় আয়-ব্যয় এবং উন্নয়ন মূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে থাকে।


Share with :

Facebook Twitter